১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৭ | শনিবার | ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১

বিস্তারিত সংবাদ

বরাইদ ইউনিয়নের নৌকার মাঝি হতে চান আপেল মাহমুদ

সর্বশেষ আপডেট ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১ ইং

আমারজমিন নিউজ ডেস্ক :
আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে শুরু হয়েছে জমজমাট প্রচার-প্রচারণা। তারই অংশ হিসেবে সাটুরিয়া উপজেলার ১নং বরাইদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী-লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আপেল মাহমুদ চৌধুরী। ইতিমধ্যে সভা সমাবেশ, সামাজিক, রাজনৈতিক ও বিভিন্ন সেবামূলক কর্মকান্ডের মাধ্যমে বরাইদ ইউনিয়নবাসীকে ইউপি নির্বাচনে চেয়াম্যান পদে তার প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি জানান দিয়েছে।
বরাইদ ইউনিয়ন আওয়ামী-লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মরহুম জাহাঙ্গী আলম চৌধুরীর ছেলে গোপালপুর গ্রামের কৃতি সন্তান। তিনি বরাইদ ইউনিয়ন ছাএলীগের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক সভাপতি ও সাটুরিয়া উপজেলা ছাএলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক এবং সরকারী ভি এম কলেক শাখা ছাএলীগের সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। গোপালপুর হাই স্কুলের পরিচালনা পরিষদের বার বার বিপুল ভোটে নির্বাচিত অভিভাবক সদস্য। বর্তমানে তিনি বরাইদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তিনি বরাইদ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন ও বর্তমান বাংলাদেশ সরকরের সফল স্বাস্থ্য মন্ত্রী আলহাজ্ব জাহিদ মালেক স্বপন ও আওয়ামীলীগ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড সাধারণ মানুষের মাঝে তুলে ধরছেন। এছারা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতিতে শেখ হাসিনার স্বপ্ন গ্রামকে শহরে পরিণত করতে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে একজন নিরলস প্রার্থী হিসেবে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন।
চেয়ারম্যান পদে আ.লীগের মনোয়ন প্রত্যাশায় প্রতিনিয়ত উঠান বৈঠক, মতবিনিময় সভা, গণসংযোগ ও বিভিন্ন ধরনের শোডাউন চালিয়ে যাচ্ছেন। অসহায় মানুষের মাঝে এাণ বিতরণ, মসজিদ, মন্দির , ক্লাবসহ বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে অনুদান দিচ্ছে।
এ ব্যাপারে তিনি জানান, আমি প্রথমত আওয়ামী পরিবারের একজন সন্তান। রাজনীতি আমার নেশাপেশা। আমি র্দীঘ ২৫ বছর ধরে দলের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। আমি বরাইদ ইউনিয়ন মানুষের পাশে থেকে সেবা করতে চাই। কারণ এই ইউনিয়নে আমার দাদা মরহুম কলিম উদ্দিন চেয়ারম্যান দীর্ঘ ২৭ বছর চেয়ারম্যান থেকে মানুষের সেবা করেছেন। তিনি তার নিজ অর্থায়নে ইউনিয়ন পরিষদ এর জন্য ভূমি ক্রয় করে প্রথম ভবন স্থাপন করেন পাতিলাপাড়া গ্রামে। তিনি আরো জানান, বিগত জামাত- বিএনপি ধবংস তান্ডব ও নাশকতা প্রতিহত করার নিমিওে জনবল নিয়ে মানিকগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে প্রতিটি মিটিং- মিছিলে অংশ গ্রহন করেছি। ১৯৯৬ সালে বি-এনপি বিরোধী বৈঠা মিছিল আন্দোলন সংগ্রামে অংশ গ্রহন করেছি।
তাই আসন্ন নির্বাচনে আ.লীগের নৌকা প্রতীকের আমিই যোগ্য দাবীদার। দলীয় মনোনয়ন পেলে প্রত্যেকটি নেতাকর্মী ও সমাজের সাধারণ মানুষদের সাথে নিয়ে আমি বরাইদ ইউনিয়নকে একটি আধুনিক ইউনিয়নে রূপান্তর করবো। জনপ্রতিনিধি না হয়েও বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আমি মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *