১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | মঙ্গলবার | ১লা ডিসেম্বর, ২০২০

বিস্তারিত সংবাদ

টাঙ্গাইলে মুক্তিযোদ্ধার বাড়ীসহ ৩ বাড়ী নদী গর্ভে বিলিন

সর্বশেষ আপডেট অক্টোবর ১৯, ২০২০ ইং

নাগরপুর(টাঙ্গাইল)প্রতিনিধিঃ জেলায় বন্যার পানি কমার সাথে সাথে বিভিন্ন স্থানে দেখা দিয়েছে নদী ভাঙ্গন । ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে অনেক পরিবার। টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুয়াজানীর ৩টি বসত বাড়ির বন্যায় ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভেঙ্গে গেছে দোয়াজানি ও গয়হাটা পাকা রাস্তার কেতার ব্রীজের দক্ষিণ পাশের শহিদুল, ময়নাল ও মুক্তিযোদ্ধা মৃত মফিজের বসত বাড়ী। নোয়াই নদীর শাখা (খাল) কলিয়া হয়ে দুয়াজানি উল্লেখিত কেতার ব্রীজের নিচ দিয়ে বেকড়া দিকে প্রবাহিত হয়েছে। বন্যায় এই খালের পানি কমতেই হঠাৎ করে বসত বাড়ির ভিটে পাকা ঘরসহ বহু গাছপালা নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যায়।

নি:স্ব হয়ে পড়েছে ৩টি পরিবার । ভাংঙ্গনের কবলে পড়ে বিলীন হয়ে গেছে দীর্ঘদিনের বাপ দাদার ভিটেবাড়ি। ভাঙ্গন প্রতিরোধে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও প্রশাসন কোন উদ্যোগ নেয়নি বলে জানিয়েছেন ওই ক্ষতিগ্রস্থ ৩টি পরিবার।

ক্ষতিগ্রস্থ ময়নাল ও জহিরুল মিয়া জানান, বন্যায় এই খালের পানি কমতেই শুরু হয় ভাঙ্গন। এক রাতের মধ্যেই বসত বাড়ির ভিটে পাকা ঘরসহ বহু গাছপালা সহ পানির নিচে তলিয়ে যায়। হঠাৎ করে এখানে পাকের সৃষ্টি হয়ে মুহুর্তের মধ্যে সব কিছুই পানির নিচে চলে যায় ।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. কামরুলজ্জামান মনি জানান, ভাঙ্গনের খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে যাই এবং ঐ ৩টি বাড়ি পরিদর্শন করি। ভাঙ্গনের ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *